৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৪
এপ্রি ২৪২০১৭
 
 ২৪/০৪/২০১৭  Posted by

শাপলা সপর্যিতা’র এক গুচ্ছ মনোলগ


জলে ছেপেছি নিজের ছায়া ভেঙে পড়ে বারবার
কোথা চলেছি দিনের খোঁজে জানে সে কি রাত্রি আমার…


কবিতায় রাখি প্রেম-
রেখেছি অস্পৃশ্য
নোনা জলে
নিয়েছি জেনে সবই
প্রতীক্ষা প্রত্যাশা
অস্ফুটে
জীবনের সব ঘ্রাণ
জেনে নিয়েছি কেবল
বেজেছি ভীষণ
সংক্ষুব্ধে……..


সজল তোমার
বর্ষা ওগো
খোলোগো সখা
আমার ঘরে
রুদ্র রোদে
প্রবল ধারায়
বোশেখ আমার
আঙন জুড়ে…….


আমার ব্যাপ্ত
আকাশ রয়েছে
তোমার মুক্ত
বিহঙ্গডানা
উড়ে চলো তুমি
আকাশে আকাশে
মেলে দাও ওই
ক্ষিপ্রপাখনা
আমি তো ছেড়েছি
ধন্ধ সকল
নির্ভার সব
মন ও মানুষ
তুমি উড়ে চলো
নির্দ্বন্দ্বে থাকো
নির্মল হোক
প্রাতঃ ও প্রদোষ


আমার স্বপনে
প্রভাতে কিরণে
প্রকাশে গোপনে
শুকতারাটিই
জ্বলে
মধ্য দুপুরে
সান্ধ্য সমীরে
নিশীথে তিমিরে
আলোটি জ্বালিয়ে
রাখে……


আমি কেবলই
রোদে হেঁটে হেঁটে
পুড়েছি গায়ের
সোনালি আভা
অন্তর পুড়ে
ছাই করেছিতো
ছিল জমা যত
ভালোবাসা
মাথার উপরে
রোদ্র আকাশ
লাগেনাতো আর
কোনো ছাতা
বৃষ্টিতে ভিজে
ধুয়েছি সকল
নশ্বর যত
মলিনতা …..

ক বি  প রি চি তি

শাপলা সপর্যিতা

শাপলা সপর্যিতা

শাপলা সপর্যিতা। জন্মঃ ৬ অক্টোবর। সিলেট সরকারী পলিটেকনিক কলোনী (সুরমা নদীর পাড়ে)। গ্রামের বাড়ি – সুনাম গঞ্জ। বাবা- মোঃ আব্দুল হক একজন শিক্ষক (সরকারী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট- রিটায়ার্ড)। মা- মোছাঃ আনোয়ারা হক। গৃহিণী। কবি বর্তমানে বাস করছেন ঢাকায়। শিক্ষাঃ বি এ (অনার্স) ১৯৯৪ এবং এম এ (বাংলা) ১৯৯৫ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থঃ এই পৃথিবী এই দেশে (১৯৯১); নিভৃত পরবাস (২০০৮)।

Loadingপ্রিয় তালিকায় রাখুন!
E