৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৪
সেপ্টে ২৬২০১৭
 
 ২৬/০৯/২০১৭  Posted by

মজনু শাহ-এর একগুচ্ছ কবিতা


ঝরোকা

কবে থেকে ভোঁ হয়ে আছ, এই ঝরোকা ছেড়ে তুমি কোথাও যাবে না।
বাইরে যখন উড়ছে লাল ধুলো, সেই পটভূমিকায় অজস্র কার্পাস
ফুটে আছে শব্দের মতো, শব্দের হিরণ, তারা আসে অনেক স্বপ্নের
ঐপার থেকে, জুয়ার টেবিল থেকেও। চারিদিকে মোক্ষদাস, মোক্ষদাসী,
কত শব্দ ছুঁড়ে দিচ্ছে তারা, তুমি তবু ভোঁ হয়ে আছ সারাক্ষণ
দস্যুবইয়ের পাতা মেলে। বিশাল কোনো অপরাধীর মতো রাত্রি আসে,
সেইসঙ্গে কারো একটানা অশরীরী হাসি।

 


পান্না-কোকিল

কী চাও এখানে, পান্না-কোকিল?

এই বিধ্বংসী নীরবতায় ঘুম শুষে নিচ্ছে রাবার গাছেরা।
ঘুমোচ্ছে ব্যান্ডবাদকের ছোট বউ, জাগিও না তাকে। যে-জগত
গানের, বিপুল অন্তর্ধানের, সেইদিকে তাকিয়ে মাথা আর দুলিও না।
এইবার সভ্যতার সবখানে বসে থাকা প্রেত হও একটু বরং।

 


বানর

অতিকায় স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে আছে কর্পরেট ঋষি,
আজও কি শেয়ার মার্কেটে বুম, নাকি ডিপ্রেশন!

বাইরে ছটফট করছে ফিটন গাড়ির ঘোড়া। ঘোড়াদের খুব একটা
দেখা যায় না আজকাল, অবশ্য অসংখ্য দীক্ষিত বানর রয়েছে,
তারা সবজান্তা ও হাসিখুশি ঘুরছে চারদিকে। একেকজন যেন অভিমন্যু,
গর্ভাবস্থায় সমস্ত জেনেছে, প্রত্যেকের হাতে কামশর, কটাক্ষমশগুল।

 


লেখা

আরো একটি লেখায় তুমি বুঁদ হয়ে যাও কেন? আরো একবার
মাথা কেটে রেখে দিচ্ছ টেবিলে, চারপাশে ক্ষুধার্ত বিচক্ষণ!
কবিতা লেখা সঙ্গমের চেয়ে উৎকৃষ্ট রসিকতা যদি ভাবো,
তবে মাথা কেটে ফেলার আগে আরো কিছু মাটি খাও,
সেই মাটি, যা তুমি হবে একদিন। একটি অবসাদগ্রস্ত কাকাতুয়া
চক্রাকারে ঘুরবে সেই সমাধিকে লক্ষ করে।


কবি পরিচিতি

মজনু শাহ

মজনু শাহ

মজনু শাহ। ১৯৭০ সালের ২৬শে মার্চ উত্তরবঙ্গে জন্মগ্রহণ করেন। বর্তমানে ইতালিতে একটি রাসায়নিক কারখানায় কর্মরত আছেন।

প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ : আনকা মেঘের জীবনী (১৯৯৯), লীলাচূর্ণ (২০০৫), মধু ও মশলার বনে (২০০৬), জেব্রামাস্টার (২০১১), ব্রহ্মাণ্ডের গোপন আয়না (২০১৪), আমি এক ড্রপআউট ঘোড়া (২০১৬)।

Loadingপ্রিয় তালিকায় রাখুন!
E