৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৪
জুলা ২০২০১৭
 
 ২০/০৭/২০১৭  Posted by

মধুপারাপার
– বিশ্বজিৎ
————


ভালোবাসাগুলো রাস্তা বদলাচ্ছে…
বদলে যাচ্ছ একই সীমানা ধরে। পরিচিত
ক্যাডবেরি, মিষ্টির দোকানজুড়ে
পুরনো আলবাম সাজানো রয়েছে।
তুমিও বৃষ্টি…

ঘাসে ঘাসে আরও নিয়মকানুন


রঙ।
ইতিহাস।
স্পর্শ।

প্রতিদিন স্কেচ হয়ে যাচ্ছে
একটা মেধাবী টেনশান…


আলোর দিকে বরাবর এতো লোভ
তবুও অন্ধকার কম যায় না।
পাতায় পাতায় যে সমীকরণ খেলা করে
তুমি তার নাম দিলে তুচ্ছ…
তুমি তার হাত ধরে দস্যুতা

দেখো, আকাশ জুড়ে আশ্চর্য ভেসে উঠছে


তোমায় দেখে কেউ হাসলে
তোমারও হাসি পায়,
করুণা হয় তাদের প্রতি।

তিল তিল করে
আরও জমতে থাকে,
ভালোবাসার বিপ্লব…


ভূত ও ভগবান
দুই-ই তোমার কাছে এক।
শুধু সারাদিন হেঁশেল ঠেলে যাওয়া
একটা ছায়ার অপেক্ষায়…


পদ্মপাতার ওজন কমে আসছে
পুরনো সম্পর্কগুলোও অনেকটা হালকা
গড়ের ওপর রাঙ্ִতা চাপিয়ে
ফুলে উঠছে আন্তরিকতা…


চারিদিকে গিরগিটির গপ্পো
তবুও পরিপাটি মঞ্চজুড়ে…
ডারিএন কোনদিক থেকে বেজে যাচ্ছে
কোনদিকে পালাবার পথ

আলো খেলতে খেলতে
সবকিছু ধোঁয়াময়…


সব অপমান সঙ্গে নিয়ে
আরও অনেক চলা…
আরও অনেক বলে যাওয়ার ধুলোবালি


প্রতিটি প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ হচ্ছে
এক নির্বাণ শান্তির দিকে…
পুরনো গিটারের শব্দে আরও গভীর,
আরও অন্ধকারে

সব ধ্বংস এক হয়ে যাচ্ছে

১০
আমার কোনও ধর্ম নেই।
আমার কোনও রঙ।

শুধু মানুষ সেজে,মানুষ হয়ে
আজীবন বেঁচে থাকার…

একটা উৎসব পালন করে যাওয়া

 


 বিশ্বজিৎ

বিশ্বজিৎ

বিশ্বজিৎ। জন্মঃ- ০১/১০/১৯৮৬। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার শ্যামনগর, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত। শিক্ষাঃ- বাংলায় স্নাতক (কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়); বাংলায় স্নাতকোত্তর (কল্যানী বিশ্ববিদ্যালয়)। প্রথম কবিতা প্রকাশ পায় ‘কবিসম্মেলন’ পত্রিকায় ২০০৮ সালে। তারপর একে একে রক্তমাংস, কবিতা ক্যাম্পাস, কবিতাপাক্ষিক, একুশ শতক, অদ্বিতীয়া, পরিণীতা, কালিমাটি, প্রতীতি, আমি অনন্যা, দুর্বাসা, বৃষ্টিদিন, ধ্রুবতারা ইত্যাদি নানা পত্র-পত্রিকায় অজস্র লেখা প্রকাশ পেয়েছে।

প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থঃ- ১) পাগল সিরিজ (স্বপ্নফেরি-২০১২); ২) জন্মদাগ (আগুনমুখা-২০১৫); ৩) অবশ্যম্ভাবী রক্তক্ষরণের দিকে (একালের কবিকন্ঠ-২০১৫); ৪) গুহাখেকো ও উন্মাদের প্রতিলিপি (ছোট কবিতা-২০১৭)

সম্পাদনাঃ- ‘স্বপ্নফেরি’।

সম্মাননাঃ- দুই বাংলার ছড়া উৎসব সম্মাননা, রুদ্রকাল কবি-সাহিত্যিক সম্মাননা।

Loadingপ্রিয় তালিকায় রাখুন!
E