৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪
জানু ০৩২০১৭
 
 ০৩/০১/২০১৭  Posted by
বেবী সাউ

বেবী সাউ

বেবী সাউ -এর “আকাশবাণী”


এসব ছলাকলা নিয়ে আর কতদিন আটকাবে আমায়
ইঁদুর নেই বলে ফাঁকা পড়ে আছে তৃষিত মাঠ
গাছের চোখ জুড়ে দিগন্ত বিস্তৃত ক্ষুধা
শুকনো ফসলের দাম মেলাতে মেলাতে
পরপার এগিয়ে আসছে

কখনো বাসনা সম্পূর্ণ পূর্ণ হয় না
কোনোকালে একটা গানে ভরে থাকে না সমস্ত জীবন

তারচেয়ে চল খানিক হিলস্টেশন ছুঁয়ে আসা যাক
খানিকটা ঘোরা যাক ইতিউতি


সমস্ত দিন হিসেবের ঘর মেলালো নিয়ে আমাকে ভুলেছ তুমি

এইসব না কাজের বাহানা জুড়ে
বছর তৈরী হয়
তৈরী হয় সংসার
মরাল সাপ পুষে পুষে চেঞ্জ খোঁজে
প্রচলিত দৃশ্যপট  

আরো দৃঢ় আরো শক্ত বাঁধনের উপাসনা

এতদিন যেসব কাজের মধ্যভাগে ছিলাম
আজ সমস্ত কাজ আমাকে অতিক্রম করে গেছে আর দেখো, আমি
মাটিতেই ফিরে গেছি


রুনুঝুনু করে আলো বাজছে
ক্লান্তি!
আহা ক্লান্তি

সমে এসে থেমে থাকা এই যে আধ-খাওয়া পোড়া গান
ভাবছ, কিকরে আবার প্রথম থেকে শুরু করা যায়
ভাবছ, জল মাঝি নিয়ে এই যে অর্ধ-সমাপ্ত খেলা
এইযে খড়কুটো নিয়ে তৈরী আমাদের আসবাব

এবার থেকে কী আবার জ্যোৎস্না খেলবে ফুটো ফুটো সম্পর্কের চালে!


এত যে উপাসনা পুষেছি মনে মনে
ফল তো একমাত্র গাছের প্রাপ্য  

বিষন্ন পালক নিয়ে দিনরাত বসে আছে
দরজায় ঝুলছে শহরের চোখ
আমিত্ব নিয়ে বটগাছের ডালাপালা
বাড়ছে

বোধি দাও! পায়েস দাও ঠাকুর হে

এবারেও কি তুমি আসবাবের নতুন অর্ডার দেবে?


যত সময় যাচ্ছে পচে উঠছে
পোষা শব

বিস্তারিত চোখ নিয়ে আমরা রেলিং ধরে আছি
উথলে উঠছে দুধের বাটি
আগুন কি একমাত্র শুদ্ধতার পথ!

ঘুম পাচ্ছে
ব্যক্তিত্ব বুঝে চলে যাচ্ছে খেয়ালী মন

ঘুমুতে তো চাই
সময় বুঝে শুধু আলো নিভিয়ে দিও

Loadingপ্রিয় তালিকায় রাখুন!
E